May 27, 2024, 7:33 am
শিরোনাম :
পটুয়াখালীর উপকূলে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় “রেমাল” এর অগ্রভাগ দলীয় শৃঙ্খলা লঙ্ঘন, পটুয়াখালী সদর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতিকে কারন দর্শানোর নোটিশ জলোচ্ছাসে প্লাবিত হতে পারে পটুয়াখালীর উপকূলীয় অঞ্চল, ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত নিম্নচাপের প্রভাবে পটুয়াখালীতে বৃষ্টি, তিন নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত পায়রা বন্দর থেকে ৪৯০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে গভীর নিম্নচাপটি ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল, আঘাত হানবে বাংলাদেশ ও ভারতে আচরন বিধি লঙ্ঘন, দুমকিতে চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুন অর রশিদ হাওলাদারকে শোকজ বাউফলে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শিক্ষার্থীর মৃত্যু দুমকিতে মোশাররফ হত্যায় জড়িত আসামিদের ফাঁসির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন ইউনিভার্সিটি অফ গ্লোবাল ভিলেজের শিক্ষার্থীদের পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র পরিদর্শন

সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রী এমপি শাহজাহান মিয়ার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

সুনান বিন মাহাবুব, পটুয়াখালী অফিসঃ

আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য, সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ও পটুয়াখালী-১ আসনের এমপি অ্যাডভোকেট শাহজাহান মিয়ার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (২১ অক্টোবর) এক শোকবার্তায় তিনি বলেন, “শাহজাহান মিয়া বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের একজন নিবেদিত প্রাণ নেতা ছিলেন। তিনি পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিসহ দলের বিভিন্ন দায়িত্ব নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করেছেন। তার মৃত্যুতে দল হারালো একজন দক্ষ রাজনৈতিক নেতাকে। আমি হারালাম একজন বিশ্বস্ত রাজনৈতিক সহযোদ্ধাকে”।

এছাড়াও শাহজাহান মিয়ার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। শোক বার্তায় তিনি জানান, শাহজাহান মিয়া ছিলেন একজন বরেণ্য রাজনীতিবিদ ও আইনজীবী। দেশগঠনে ও জাতি গঠনে তার ভূমিকা স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

উল্লেখ্য, শনিবার (২১ অক্টোবর) সকাল ৬টায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। শাহজাহান মিয়া ১৯৪০ সালের ১৭ জানুয়ারী জন্মগ্রহণ করেন। তিনি পেশায় একজন আইনজীবী এবং বরেণ্য রাজনীতিবিদ ছিলেন। তিনি ১৯৯১ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও তিনি ১৯৬০ সনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ইকবাল হলের ছাত্র লীগের সদস্য, ১৯৬৭ সনে মহাকুমা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক, ১৯৬৯ সনে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, ১৯৭৩ সনে পটুয়াখালী পৌরসভা চেয়ারম্যান এবং ১৯৯৬, ২০০৮, ২০১৮ সনে পটুয়াখালী ১ আসনে সংসদ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ধর্ম প্রতিমন্ত্রী থাকাকালীন অবস্থায় বাংলাদেশ হজ ব্যবস্থাপনায় শ্রেষ্ট হয়েছিলেন। তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে, এক মেয়েসহ নাতি এবং অসংখ্য ভক্ত, রাজনৈতিক ও আইন পেশার সহকর্মী রেখে গেছেন। তার মৃত্যুতে নিজ এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শোক জানিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি মন্ডলির সদস্য জাহাঙ্গির কবির নানক, সংসদ সদস্য আসম ফিরোজ, সংসদ সদস্য এস এম শাহজাদা, সংসদ সদস্য মহিবুর রহমান, সংসদ সদস্য কাজী কানিজ সুলতানা হেলেনসহ পেশাজীবী, জনপ্রতিনিধিসহ সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

অদ্য বিকাল ৩ টায় জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিন প্লাজায় তার ১ম নামাজের জানাজা শেষে আগামীকাল সকাল ১১ টায় পটুয়াখালী শেখ রাসেল শিশুপার্ক প্রাঙ্গনে ২য় নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা