রাঙ্গাবালীতে বিদেশ পাঠানোর নামে প্রতারণার অভিযোগ,৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

atikul Alam
পটুয়াখালী বার্তা, পটুয়াখালী

তারিখ: ২০১৮-০৯-২৫ | সময়: ০৭:৪০:০২

রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :বিদেশ পাঠানোর নামে প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার চারজনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করা হয়েছে। উপজেলার বড়বাইশদিয়া ইউনিয়নের খাসমহল গ্রামের দুলাল প্যাদার স্ত্রী কুলসুম বেগম বাদি হয়ে মামলাটি করেন। মঙ্গলবার গলাচিপা বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ মামলা করা হয়। এ মামলায় আসামিরা হলেনÑনিজাম হাওলাদার (৪০), তহমিনা বেগম (৪২), আঃ মজিদ হাওলাদার (৬২) ও সাইফুল (৩৫)। তাদের বাড়ি উপজেলার বড়বাইশদিয়া ইউনিয়নের খাসমহল গ্রামে।
ওই মামলার বিবরণে উল্লেখ করা হয়, আসামিরা প্রতারক ও ভুয়া আদম ব্যবসায়ী। আসামিদের কয়েকজন আত্মীয়-স্বজন বিদেশ বসবাস করছে। সেই নাম ভাঙিয়ে তারা এলাকায় আদম ব্যবসা শুরু করে। দীর্ঘদিন ধরে বাদি কুলসুম তার বেকার ছেলে রমজান হাসানকে বিদেশে পাঠানোর চেষ্টা করে আসছে। বাদি এবিষয়টি আসামিদের সঙ্গে আলোচনা করে।
একপর্যায় ৪ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে বাদির ছেলেকে চাকরি দিয়ে সৌদি আরব পাঠানোর প্রতিশ্রুতি দেয় আসামিরা। এ কথায় রাজি হয়ে ২০১৭ সালের ২৬ ডিসেম্বর আসামিদের হাতে ধার্যকৃত টাকা বাদি তুলে দেন। কিন্তু টাকা দেওয়ার পর বাদির ছেলেকে বিদেশ না পাঠিয়ে বিভিন্ন অজুহাতে ঘুরাতে থাকে তারা। এনিয়ে স্থানীয়ভাবে শালিস বিচারও হয়। তবুও টাকা চাইলে বাদিকে খুন-জখমের হুমকি দেয় আসামিরা।
মামলার বাদি কুলসুম বেগম বলেন, ‘আমার স্বামী ক্ষুদ্র মৎস্য ব্যবসায়ী। ছেলে বেকার থাকায় তাকে বিদেশ পাঠানোর জন্য আসামিদের কাছে টাকা দিছি। কিন্তু বিদেশ পাঠানতো দূরের কথা আসামিরা প্রভাবশালী হওয়ায় সেই টাকা চাইলেও ফেরত পাচ্ছি না। উল্টো আমাদেরকে বিভিন্ন ধরণের হুমকি ধামকি দিচ্ছে। নিরুপায় হয়ে আদালতে মামলা করছি। আমি আমার টাকা ফেরত চাই। ’





Comment Disabled

Comments