প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভনে মাদ্রাসা ছাত্রীর সর্বনাশ

স্টাফ রিপোর্টার 3
পটুয়াখালী বার্তা, পটুয়াখালী

তারিখ: ২০১৭-০২-০৪ | সময়: ০৭:২৬:১৫


কলাপাড়া প্রতিনিধি ॥ বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে বিয়েতে অস্বীকৃতি জানালে দশম শ্রেণির এক মাদ্রাসা ছাত্রী বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। উমেদপুর দাখিল মাদ্রাসার এ শিক্ষার্থী এখন কলাপাড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে এ শিক্ষার্থী বিষ খেয়ে আত্মহননের চেষ্টা চালায়। হলদিবাড়িয়া গ্রামের ওই শিক্ষার্থী জানায়, একই গ্রামের মুকুল হাওলাদারের ছেলে হুমায়ুন কবির তার এমন সর্বনাশ করেছে। এখন হুমায়ুন গা ঢাকা দিয়েছে। প্রেমের সম্পর্ক তৈরি করে বিয়ের প্রলোভনে ফেলে এ তাকে শারীরিক সম্পর্কের ফাদে ফেলা হয়। হতভাগী শিক্ষার্থী এও জানায়, বর্তমানে হুমায়ুনের সজনেরা বিষয়টি চেপে যেতে প্রভাবশালী লোকজন নিয়ে হুমকি দেয়া হচ্ছে। সংবাদকর্মীরা বিষয়টি জানতে পারলে আরও মরিয়া হয়ে লেগেছে। কলাপাড়া থানার ওসি জিএম শাহনেওয়াজ জানান, তাদেরকে কেউ বিষয়টি অবহিত করেনি। তবে খোঁজ নিয়ে, সব জেনে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য হেমায়েত উদ্দিন শিকদার ওরফে উকিল শিকদার জানান, উভয়ের মধ্যে সম্পর্ক থাকতে পারে। তিনি হাসপাতালে গিয়েছিলেন। ওই শিক্ষার্থীকে দেখে এসেছেন। অভিযুক্ত হুমায়ুন হওলাদারের বাবা মুকুল হাওলাদারকে মোবাইল করলে কল রিসিভ করে তিনি লাইন কেটে দেন।





Comment Disabled

Comments