‘আলাপন’ অ্যাপ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার 3
পটুয়াখালী বার্তা, পটুয়াখালী

তারিখ: ২০১৬-০৯-০৫ | সময়: ০৭:২২:৩৫


ঢাকা অফিস ॥ ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে চৌদ্দ লাখ সরকারি কর্মকর্তাদের যুক্ত করতে দেশীয় মেসেজিং অ্যাপ ‘আলাপন’র উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী এই অ্যাপটির উদ্বোধন করেন। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের বলেন, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য এই অ্যাপ অনেকটা ভাইবারের মত। এটা রিলায়েবল। প্রধানমন্ত্রী অ্যাপের মাধ্যমে বরিশালের জেলা প্রশাসকের সঙ্গে কথা বলেছেন বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব। ইনস্ট্যান্ট এই মেসেজিং অ্যাপের মাধ্যমে সরকারি কর্মকর্তাদের যোগাযোগ এবং দাপ্তরিক কাজ সহজ হবে বলে জানানো হয়। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীনে তৈরি এই অ্যাপের মাধ্যমে সরকারের সকল কর্মকর্তারা দেশ-বিদেশ থেকে বিনামূল্যে নিজেদের মধ্যে এবং গোষ্ঠীগত আলাপচারিতা (চ্যাট ও গ্রুপ চ্যাট), কথোপকথন ও ভিডিও কথন (ভয়েস ও ভিডিও কল), গ্রুপ কনফারেন্স, বার্তা প্রেরণ, নথি আদান-প্রদান করা যাবে। কর্মকর্তাদের অবস্থানও জানা যাবে। অ্যাপের অ্যাডভান্স সার্চ অপশন থেকে খুব সহজেই নির্দিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের আওতাধীন সুনির্দিষ্ট যে কোনো কর্মকর্তার মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করা যাবে এবং সকল ধরনের যোগযোগ আরও সহজতর হবে। এছাড়াও সরকারি কর্মকর্তাদের এই আন্তঃযোগাযোগ মাধ্যমের নিরাপত্তা যাতে সহজেই কেউ বিঘিœত করতে না পারে সেজন্য এই অ্যাপে আধুনিক সব নিরাপত্তা ব্যবস্থা সন্নিবেশ করা হয়েছে। শুধুমাত্র সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য প্রস্তুতকৃত এই অ্যাপ ব্যবহারে অন্য সকল অ্যাপের চাইতে কম ব্যান্ডউইডথ, কম চার্জ, কম স্পেস প্রয়োজন হবে বিধায় তা গতানুগতিক অন্য সকল অ্যাপের চাইতে অনন্য বলে জানানো হয়। ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়া এই অ্যাপে অতিরিক্ত কোনো খরচের প্রয়োজন হবে না, ফলে সরকারের অর্থ সাশ্রয় হবে। সরকারি কর্মকর্তাদের আন্তঃযোগাযোগে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন সাধিত হবে বলে আশা করছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ। গত জুন মাসে রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে তথ্য-প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানিয়েছিলেন, ভাইবার, হোয়াটস অ্যাপের আদলে এই যোগাযোগ অ্যাপ তৈরি করে দেশিয় একটি প্রতিষ্ঠান। পলক জানিয়েছিলেন, এই অ্যাপের মাধ্যমে ১৪ লাখ সরকারি কর্মকর্তা তাদের আন্তঃযোগাযোগের জন্য ফাইল লেনদেন, ভিডিও কনফারেন্স- প্রত্যেকটা কাজ ইন্টারনেটের মাধ্যমে স্বল্প পরিমাণ অর্থ খরচ করে ব্যবহার করতে পারবে।

 





Comment Disabled

Comments