ওবামার নিরাপত্তা উপদেষ্টার সঙ্গে চীনা কর্মকর্তার বচসা

স্টাফ রিপোর্টার 3
পটুয়াখালী বার্তা, পটুয়াখালী

তারিখ: ২০১৬-০৯-০৪ | সময়: ০৭:২৩:২৫


ইন্টারন্যাশনাল ডেক্স ॥ বিমানবন্দরের টারমাকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা সুসান রাইসের সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন এক চীনা কর্মকর্তা। গত শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট উড়োজাহাজ থেকে নেমে আসার সময় এ ঘটনা ঘটে। জি-টোয়েন্টি শীর্ষ সম্মেলন উপলক্ষে ওবামার সফরসঙ্গী হিসেবে রাইসও চীনে গিয়েছেন। চীনের পূর্বাঞ্চলীয় শহর হ্যাংঝুতে ওবামাকে বহনকারী উেেড়াজাহাজটি নামার অল্পক্ষণ পর গণমাধ্যম কর্মীদের জন্য নির্ধারিত একটি জায়গার দড়ির বেড়া টপকে ওবামার গাড়িবহরের দিকে রওয়ানা হন রাইস। কিন্তু এক চীনা কর্মকর্তা তাকে বাধা দেন। এ সময় তাদের মধ্েয তর্কাতর্কি বেধে গেলে যুক্তরাষ্ট্রের সিক্রেট সার্ভিসের এজেন্টরা দুজনের মাঝে এসে দাঁড়ান, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের। ওই চীনা কর্মকর্তার কথা স্পষ্টভাবে শোনা গেলেও রাইসের কথা যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টকে বহনকারী উড়োজাহাজ ‘এয়ার ফোর্স ওয়ানের’ ডানার নিচে দাঁড়িয়ে থাকা সাংবাদিকদের রেকর্ডে স্পষ্ট হয়নি। সুসান রাইস যুক্তরাষ্ট্রের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা এবং তিনি সাংবাদিক নন, এটি ওই চীনা কর্মকর্তা জানতেন কিনা তা জানা যায়নি। তাৎক্ষণিকভাবে তার নামও জানা যায়নি। পরে হোয়াইট হাউসের এক প্রেস কর্মকর্তার সঙ্গেও বিতা-ায় জড়ান ওই চীনা কর্মকর্তা। ওবামা উড়োজাহাজ থেকে নামার সময় কোথায় দাঁড়াতে হবে তা বিদেশি সাংবাদিকদের দেখিয়ে দিচ্ছিলেন হোয়াইট হাউসের ওই কর্মকর্তা। এ সময় ওই চীনা কর্মকর্তা রাগতভাবে ইংরেজিতে হোয়াইট হাউসের ওই কর্মকর্তাকে নির্দেশ করে বলেন, “এটি আমাদের দেশ। এটি আমাদের বিমানবন্দর। এই ঘটনার বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং হোয়াইট হাউসের এক মুখপাত্র। ঘটনার সময় ওবামা উড়োজাহাজ থেকে নেমে আসলেও তিনি মার্কিন রাষ্ট্রদূত ও অন্যান্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়ে ব্যস্ত থাকায় কিছু লক্ষ্য করেননি। এরপর তিনি প্রেসিডেন্টের গাড়িবহরে করে বিমানবন্দর ত্যাগ করেন, ওই বহরে রাইসও ছিলেন। শীর্ষ এই সম্মেলনকে কেন্দ্র করে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে চীন। বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতির দেশগুলোর নেতাদের এ সম্মেলন কোনো ধরনের অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা ছাড়াই শেষ করতে চায় দেশটি।





Comment Disabled

Comments