বাংলাদেশে ফিরে বীরের সংবর্ধনা পেলেন দীপা

স্টাফ রিপোর্টার 3
পটুয়াখালী বার্তা, পটুয়াখালী

তারিখ: ২০১৬-০৮-২০ | সময়: ০৮:৩৫:৩৩


স্পোটর্স ডেক্স ॥ বিশ্বের নামকরা সব অ্যাথলেটদের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে একটুর জন্য হাতছাড়া হয়েছে পদক। অলিম্পিকে পদক আসেনি, তবুও প্রথম বাঙালি মেয়ে হিসেবে খেলেছেন জিমন্যাসটিকের মূল পর্বে। তারপরও দেশে ফিরে বীরের সম্মান পেয়েছেন ত্রিপুররা মেয়ে দীপা কর্মকার।
দীপা বরণ করে নিতেই সকাল থেকেই রাজধানীর বিমানবন্দরে ভিড় জমিয়েছিলেন ক্রীড়াপ্রেমীরা। দীপার সঙ্গে ছিলেন তাঁর কোচ বিশ্বেশ্বর নন্দী। ফুলে, মালায় স্বাগত জানানো হয় দীপাকে। পদক না-জেতা সত্ত্বেও কোনও ক্রীড়াবিদকে ঘিরে ভারতে এই উন্মাদনা কার্যত নজিরবিহীন। কিন্তু গোটা বিশ্বের মন জয় করে নেয়া দীপার জন্য তা প্রত্যাশিতই ছিল।
দীপা নিজেও স্বীকার করে নিয়েছেন, অলিম্পিকে তার পারফরম্যান্স নিজের প্রত্যাশাকেও ছাপিয়ে গিয়েছে। বিমানবন্দরে নেমে দীপা বলেন, ‘আমি সাত অথবা আট নম্বরে শেষ করব বলে আশা করেছিলাম। কিন্তু চতুর্থ স্থান পাব, সেটা ভাবিনি। এই পারফরম্যান্সে আমি খুশি।’
ইতিমধ্যেই খেলরতেœর জন্য দীপার নাম সুপারিশ করা হয়েছে। যদিও দীপা বলেছেন, ‘পদক জিতে এই পুরস্কার পেলে আরও আনন্দ হত।’ দীপার কোচ বিশ্বেশ্বর নন্দীও বলেছেন, ছাত্রী পদক পেলে তিনি আরও বেশি খুশি হতেন। রিও অলিম্পিক্সের পরে দীপা এখন তারকা। দিল্লিতেই তাঁকে ঘিরে যে উন্মাদনা চোখে পড়ল, তাতে দীপার নিজের রাজ্য ত্রিপুরায় তাকে ঘিরে কী ধরনের উন্মাদনা হবে, তা সহজেই অনুমেয়। আর একই সঙ্গে টোকিও অলিম্পিক থেকে দীপা পদক আনবেন, সেই আশায় দিন গোনা শুরু করল দেশবাসী।





Comment Disabled

Comments